Subtitles

আমার দেখা ওয়ান অব দা বেষ্ট এনিমেশন মুভি – EMSubtitle

See the line
where the sky meets the sea
It calls me
And no one knows, how far it goes
If the wind in my sail on the sea
stays behind me
One day I’ll know
How far I’ll go

গানটা ব্যবহার হয়েছিলো এনিমেশন মুভি মোয়ানা (Moana) তে। গানের লিরিকের মতোই মুভিটা ও সুন্দর। এনিমেশন মুভিঃ Moana (2016), বাংলা ডাব এভয়লেবেল। আইএমডিবিঃ 7.6/10 & Rotten Tomatoes- 95%

নো স্পয়লারঃ

মোয়ানাকে কেন্দ্র করেই এই মুভির গল্প। মোটুনুই অসম্ভব সুন্দর একটা দ্বীপ। মোয়ানা তার দাদির কাছে এই দ্বীপের সম্পর্কে অনেক গল্প শুনে। একসময় এই দ্বীপে সব ছিলো। দাদীর কাছ থেকে গল্প শুনে মোয়ানা বারবার সমুদ্রে যাওয়ার চেষ্টা করে কিন্তু তার বাবা তাকে বাধা দেয়। তার দাদী মারা যাবার আগে মোয়ানাকে বলে যায় এক পৌরানিক দেবীর হৃদয় পুনরুদ্ধারের জন্য মহাসাগর তাকে নির্বাচন করেছে। এরপরে শুরু হয় আসল গল্প।
এটি ডিজনির ৫৬ তম অ্যানিমেশন মুভি।

একটা এনিমেশন মুভি কতোটা সুন্দর হতে পারে তার উৎকৃষ্ট উদাহরণ “মোয়ানা”। সেরা অ্যানিমেটকৃত চলচ্চিত্র এবং সেরা গান (হাউ ফার আই উইল গো) এর জন্য মোয়ানা ৮৯ তম একাডেমি অ্যাওয়ার্ডে মনোনীত হয়েছিলো। মোয়ানা বিশ্বব্যাপী মোট $৬৪৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করে। এটা শুধু রেকর্ড পরিমাণ আয়- ই করেনি সাথে সাথে সমলোচকদের ও মন জয় করেছি। যারা এনিমেটেড মুভি পছন্দ করেন তাদের জন্য এটা মাস্ট ওয়াচ মুভি।

“OVER THE MOON”এনিমেশন লাভারদের প্রিয় এনিমেটর “Glen Keane” প্রথমবারের মত মুভি ডিরেক্ট করেছেন।নেটফ্লিক্সের প্রোডাকশনে ডিরেকশনের সুযোগ পেলেও যেনো আশানুরূপ হয় নি মুভিটি।

স্পয়লার নেই!

আমার কাছে ফ্যান্টাসি ওয়ার্ল্ডের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো ওয়ার্ল্ড বিল্ডিং যেমনঃ Wall-E,Coco,Wreck it ralph,Coraline,Epic আরও বহুত।কিন্তু এই মুভিতে ওয়ার্ল্ড বিল্ডিং এর বিন্দুমাত্র কিছুই ছিলো না।এমনকি যেই মিথিক্যাল গডেসের কাহিনিকে পোর্ট্রে করা হয়েছে তার প্রেজেন্টেশনও ভালো লাগে নি।কাহিনির গভীরতা এবং কানেকশন খুবই খাপছাড়া লেগেছে।কারন স্ক্রিনপ্লে ভালো ছিলো না।চাঙ্গাকে আরও বেশি স্ক্রিন টাইম দেওয়া উচিত ছিলো।ওভার দ্যা মুন নাম হলেও মুভিতে মুন ওয়ার্ল্ডের কিছুই ভালো লাগে নি।অগোছালো এবং অযৌক্তিক।তার উপর কালার গ্রেডিং ছিলো প্রচুর বিরক্তিকর।

তবে এনিমেশন মুভির মেসেজগুলো বরাবরই সুন্দর হয়।এই মুভির ক্ষেত্রেও ঠিক তেমনই।মিউজিক্যাল ড্রামা হিসেবে ক্লাইমেক্সে গানের সাথে সুন্দর মেসেজ ডেলিভার করার বিষয়টি খুবই ভালো লেগেছে।অন্যান্য গানগুলোও ছিলো খুব সুন্দর।বিশেষ করে “Ultraluminary” গানে ভিজ্যুয়ালস,মিউজিক,ড্রেস কোড,মেকাপ,সেট ডিজাইন সব কিছু ছিলো একদম টপ নচ।Phillipa Soo as Chang’s just nailed it.এমনকি পুরো মুভিতেও চাঙ্গার ড্রেস কোড ছিলো অসাধারন।ওয়াও!অনেক ট্যালেন্টেড মানুষজন এর পিছনে কাজ করেছে বোঝাই যাচ্ছে। 👌 কিন্তু পরিশেষে আবারও একটাই কথা, স্ক্রিনপ্লে আরও ভালো হওয়া উচিত ছিলো।ঠিক যেনো জমে নি আসলে।ওভারঅল আমার কাছে বিলো এভারেজ লেগেছে।এনিমেশন লাভার হিসেবে একবার দেখাই যায়। 👍

ডাউনলোড লিংকঃ যেকোনো টরেন্ট সাইট কিংবা আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলেও পেয়ে যাবেন।

  • Movie: Over The Moon
  • Release Date: 23 October 2020
  • Genre: Animation, Adventure, Family, Sci-fi, Musical
  • **Director **: Glen Keane
  • IMDB Rating: 6.5/10 (রেটিং কম হয়ে গেছে, আরেকটু ডিজার্ভ করে😞)

SPOILER❕❗️ SPOILER❕❗️ SPOILER❕❗️

Fei Fei নামের এক কিশোরী মেয়েকে নিয়েই মূলত মুভিটা। শৈশবে তার মা তাকে প্রাচীন চাঁদের দেবী** ‘ Chang’e ‘**-র কাহিনী শুনাতো। তারপর একসময় Fei Fei এর মা মারা গেল, ফলে Fei Fei অনেক ভেঙ্গে পড়ে। তার জন্য বড়ই কষ্টকর হয়ে উঠে। তারপর ধীরে ধীরে Fei Fei নিজে ও তার বাবা সবকিছু মেনে নিয়ে আবার জীবন যাপন করতে থাকে। এভাবেই কয়েক বছর কেটে যায়। এত বছর পড়েও Fei Fei-এর মা এর বলে যাওয়া প্রাচীন চাঁদের দেবীর কাহিনী সে মনেপ্রাণে বিশ্বাস করে।

ইতোমধ্যে সে জানতে পারে তার বাবা ১নারীকে বিবাহ করতে চায় যা Fei Fei একদমই মানতে রাজি না। ফলে সে নিজেই বিরাট ইঞ্জিনিয়ার হয়ে 🤪 একখানা রকেট বানায় ফেলে মুহূর্তের মধ্যে 😱 চাঁদে যাওয়ার জন্য যেখানে সে প্রাচীন চাঁদের দেবী আছে বলে মনে করে।

এই মুভি ফাটাফাটি লেভেলের না কিন্তু অনেক মজার ছিল বটে। এঞ্জয় করার মতন ছিল মুভিটা, গান গুলাও অনেক জোস ছিল👌👌👌👌👌
Must Watch না হলেও One Time Watch 👏👏👏👏
” Once You Lose The Person You Love The Most, It Changes You. “🔥🔥🔥🔥🔥🔥

Source link